শুক্রবার, নভেম্বর ৩০, ২০০৭

বেল পাকিলে কাকের কী?




দৃশ্যত কোন লাভ নেই, কিছু যায় ও আসে না, তবু বেল গাছে বাসা বেঁধেছি কদিনের জন্যে, তাই বেল পাকার খবর নিই আর কি!
ঘটনা হল এই, জন হাওয়ার্ড হেরে গেছে। লেবার পার্টির কেভিন রাড আজ থেকে অস্ট্রেলিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী।

প্রায় মাস ছয়েকের বেশীদিন ধরে নির্বাচনী ক্যাম্পেইনের সমাপ্তি ঘটলো আজ। আমি অবশ্য তেমন টের টুর পাই নি। আমাদের দেশের মতন নির্বাচনটা এখানে উৎসবে রূপান্তরিত হতে পারে নি। এ দেশের লোকজন নির্বাচন নিয়ে আদৌ কতটুকু সিরিয়াস, সেটা নিয়েও আমার কিঞ্চিত সন্দেহ আছে। আজ হাতে গুনে চারজন আমাকে এসে ফিসফিসিয়ে জিজ্ঞেস করলো, আচ্ছা, আশপাশে ভোট কোথায় নেয়া হচ্ছে বলতে পারো? আমার ভোটটা এখনো দেয়া হয় নি!

পত্রিকাগুলো অবশ্য আগেই ভবিষ্যৎবানী করেছিলো, কেভিন জিতে যাবে। নানা রকম জরিপ টরিপ করে তারপরেই এইসব আগাম ঘোষনা দেয়া হয়, তাই এসবের উপরে নির্দ্বিধায় বিশ্বাস করা যায়। একেবারে শেষমুহুর্তে অবশ্য বেশ জমে উঠেছিলো। হাওয়ার্ডকে বুড়ো বলে বাতিলের চেষ্টা ছিলো শুরু থেকেই। লেবার পার্টি এই নিয়ে কম প্রচারণা চালায় নি। কেভিন সেদিক দিয়ে বেশ এগিয়ে ছিলো। অবশ্য অল্পকদিন আগে প্রচার পাওয়া একটা ভিডিও খানিকটা গোলমালে ফেলে দিয়েছিলো। বেশ আগের একটা ভিডিও ওটা, যেটার কোন এক অংশে দেখা যায়, প্রায় অস্পষ্ট কেভিন রাড বক্তৃতা শুনতে শুনতে আনমনে কানের ময়লা খুটে মুখে দিয়ে বসেছেন!

তো শেষমশষ হাওয়ার্ডের কপালে শিকে ছিড়লো না। আজকে রাতের খবরে শুনলাম, ভদ্রলোক নাকি নিজের আসনটিও হেরে বসেছেন প্রতিপক্ষের কাছে! এ কথা শুনেই আমার মুরালিধরণের কথা মনে পড়ে গেলো। ড্যারিল হার্পারের সাথে গলা মিলিয়ে স্টেডিয়ামের বাইরে থেকে মুরালিকে চাকার ডাকা লোকেদের মাঝে হাওয়ার্ডও ছিলো যে!

লোকজনের মাঝে এখনো মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখলাম। আধ-বুড়ো এক ভদ্রলোক বেশ বেজার মুখ করে আমাকে ইলেকশানের ফল জানালো। আমি জিজ্ঞেস করলাম, তুমি খুশি নও? বললো, নাহ মাইট, একটা হ্যারি পটার আমাদের দেশটা চালাক, তুমি কি তাই চাও?
আমি একবার চোখ বুজে ভাবলাম, ঠিকই বলেছে, কেভিন রাডকে নিয়ে খানিকটা ক্যারিকেচার করলে পটারের মতই লাগবে বটে।
বুড়োর পাশেই দেখি এক ছিমছিমে রূপসী দাঁড়ানো, আমি তাঁকে জিজ্ঞেস করলাম, তোমার কি অবস্থা?
বুড়োর দিকে আড়চোখে একবার তাকিয়ে স্মিত হাসিতে জানালো, আমি খুব খুশি, তুমি?
আমি? আমি চিরকাল সুন্দরের পূজারী, তাঁকে দুঃখ দিই কেমনে? বেল আর কাকের প্রবাদ মুহুর্তেই ভুলে গিয়ে বললাম, ইয়াপ, আমিও খুশ!

৪টি মন্তব্য:

দৃপ্ত বলেছেন...

হি হি হি।

ভালো লিখেছেন।

আপনার লেখার ভঙ্গি অনেকটা জাফর ইকবালের স্যারের মত। বেশ ভালো লাগে পড়তে।

konfusias বলেছেন...

বলেন কি!! জাফর ইকবাল!
আপনার মুখে চন্দন গাছ ভেংগে পড়ুক!

দৃপ্ত বলেছেন...

এই জন্যেই "অনেকটা" বলেছি। আপনি "পুরোটা" ধরে নিয়েছেন কেন? আপনি ধরবেন
"কিছুটা"। [আপনি বিনয়ী কিনা!]:d

konfusias বলেছেন...

জ্বি না, আমি কিছু ধরাধরি করি নাই। আপনি যা ধরাইয়া দিছেন, উহাই ধরিয়া বসিয়া আছি। :)